বাড়ি > > শিল্প সংবাদ

কুকুর জলাতঙ্ক সন্দেহ, আমরা কি করতে হবে?

2024-02-22

জলাতঙ্ক একটি অত্যন্ত বিপজ্জনক রোগ যা সংক্রামিত প্রাণীর কামড় বা আঁচড়ের মাধ্যমে মানুষের মধ্যে সংক্রমণ হতে পারে। জলাতঙ্কের বিস্তারের সময়মত নির্ণয় এবং নিয়ন্ত্রণ নিশ্চিত করার জন্য, সংক্রামিত হওয়ার সন্দেহযুক্ত কুকুরের পরীক্ষা করা একটি গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ। সাধারণভাবে, জলাতঙ্কের জন্য পরীক্ষায় প্রধানত একটি প্রাণীর লালা, রক্ত, সেরিব্রোস্পাইনাল ফ্লুইড বা মস্তিষ্কের টিস্যুর নমুনা পরীক্ষা করা হয়, যা একটি কুকুর জলাতঙ্ক ভাইরাসে আক্রান্ত কিনা তা নির্ধারণ করতে সাহায্য করতে পারে।

একটি সন্দেহভাজন জলাতঙ্ক সংক্রামিত কুকুর যদি একটি ব্যক্তি বা অন্য প্রাণী কামড়, নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য অবিলম্বে ব্যবস্থা নেওয়া উচিত। কুকুরের আসলে জলাতঙ্ক আছে কিনা তা নির্ধারণ করা প্রথম বিবেচনা। কুকুরের রক্ত, লালা এবং অন্যান্য নমুনা পরীক্ষা করে এটি কার্যকরভাবে নির্ধারণ করতে পারে কুকুরটি জলাতঙ্ক ভাইরাসে আক্রান্ত কিনা। অবশ্যই, পরীক্ষার ফলাফলের জন্য অপেক্ষা করার সময়, সংক্রমণের সন্দেহযুক্ত কুকুরগুলিকেও কোয়ারেন্টাইন করা প্রয়োজন। জলাতঙ্কের বিস্তার রোধ করার জন্য, পোষা প্রাণীদের নিয়মিত জলাতঙ্কের টিকা দেওয়াও একটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থা।

এটি লক্ষ করা গুরুত্বপূর্ণ যে বিভিন্ন অঞ্চল এবং দেশে বিভিন্ন জলাতঙ্ক পরীক্ষার প্রোটোকল থাকতে পারে, তাই মানুষ এবং প্রাণীদের স্বাস্থ্য এবং সুরক্ষার জন্য জলাতঙ্কের বিস্তারকে যতটা সম্ভব নিয়ন্ত্রণ করতে স্থানীয় প্রবিধান এবং সংস্থানগুলিতে সাড়া দেওয়া প্রয়োজন।

We use cookies to offer you a better browsing experience, analyze site traffic and personalize content. By using this site, you agree to our use of cookies. Privacy Policy
Reject Accept